জাপানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠ্য রবীন্দ্ররচনাবলী

রবীন্দ্রনাথের জীবদ্দশায় এবং পরেও তাঁর শিক্ষাচিন্তার প্রতি আকৃষ্ট বিদেশী শিক্ষকের সংখ্যা অগণনএক জাপানেই অনেকশিক্ষকও শিক্ষাবিদ কবিগুরুর শিক্ষাচিন্তা দ্বারা গভীরভাবে আকৃষ্ট হয়েছিলেনজাপানের অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ রবীন্দ্রনাথের শিক্ষাচিন্তায় আকৃষ্ট হয়ে লিখেছেনতাঁরা শিক্ষার্থীকে প্রকৃত মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য রবীন্দ্র শিক্ষাচিন্তাকে প্রাকৃতিক এবং সর্বজনীন দৃষ্টিকোণ থেকে উএই জন্যই কবিগুরু ১৯২১ সালে ব্রহ্মবিদ্যালয়কে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরিত করেছিলেন১৯৫৫ থেকে ১৯৭০ পর্যন্ত প্রভাবশালী শতাধিক জাতীয়তাবাদী বুদ্ধিজীবী রবীন্দ্রনাথের শরণাপন্ন হয়েছিলেনযুদ্ধবাজ মার্কিনী চিন্তাধারা প্রভাবিত শিক্ষানীতি জাপানে চালু করার হিড়িক পড়ে গিয়েছিলতার মধ্যেই যুদ্ধপূর্ব একদল রবীন্দ্রভক্ত বুদ্ধিজীবীর আহ্বানে মিলিত হন অনেক নবীন-প্রবীণশিক্ষকতাঁরা সংগঠিত হন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শততম জন্মবর্ষ উদযাপন উপলক্ষেজন্মবর্ষ উদযাপনের তিন বছর আগেই বিপুল পরিকল্পনা নিয়ে ১৯৫৮ সালে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়যার প্রেসিডেন্ট ছিলেন রবীন্দ্রনাথের শেষ জীবনের বন্ধু শিক্ষাবিদ ও পুঁজিপতি ড. ওওকুরা কুনিহিকোযুদ্ধপূর্ব সময় থেকে ভারতের সঙ্গে শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক ভাববিনিময় সম্পর্ককে পুনরুদ্ধার এবং রবীন্দ্রনাথের প্রাচ্যদেশীয় শিক্ষাভাবনাকে জাপানে প্রচলিত করার তাগিদ অনুভব করেছিলেনএকাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রবীন্দ্ররচনাকে পাঠ্যবিষয় করে পাঠদানের কার্যক্রমও চালু হয়েছিলবর্তমানে প্রসিদ্ধ তামাগাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়) শান্তিনিকেতনের আদলে শিশুশিক্ষার সূচনা করেছিলেন এর প্রতিষ্ঠাতা শিক্ষাবিদ ড. ওবারা কুনিয়োশিযুদ্ধোত্তর তাঁর প্রতিষ্ঠানের সবুজ বনজ প্রাঙ্গণে শিশুদের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা চালু করেছিলেনর অন্বেষক ও প্রবর্তক হিসেবে খ্যাত ড. ওবারা যৌবনে গভীরভাবে রবীন্দ্রনাথ কর্তৃক প্রভাবিত হয়েছিলেনএই তেরাকোইয়ার একজন শিক্ষকের পৌত্র হিসেবে জন্মগ্রহণ করার মধ্য দিয়ে শিক্ষাবিদ হওয়াই ছিল আমার জন্য ভাগ্যনির্ধারিতএই ধরনের তেরাকোইয়া শিক্ষার মধ্য থেকেই জাপানের আধুনিক সভ্যতার বিকাশ ঘটেছেআমার পরীক্ষামূলক তামাগাওয়া গাকুয়েন বিদ্যালয়ে যে শিক্ষাব্যবস্থা তার ভিত্তি হচ্ছে গভীর প্রাচ্যদেশীয় আধ্যাত্মিক চিন্তাবুদ্ধের জন্মভূমি হিসেবে ভারতবর্ষ আমার মনে বহুদিনের এক স্বপ্ন কিন্তু পরিতাপের বিষয় এখনো সেখানে পদার্পণ করতে পারিনিআমার সাধ একদিন আমি ভারততীর্থে যাত্রা করে বুদ্ধের পূতপবিত্র খোদিত বাণী এবং বিশেষ করেঅবশ্য রবীন্দ্রনাথের শিক্ষাচিন্তা তামাগাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন প্রাথমিক শিক্ষায় সীমাবদ্ধ থাকেনিএই বিশ্ববিদ্যালয় এবং নাগাসাকি বিশ্ববিদ্যালয়েও প্রচলনের প্রয়াস লক্ষ্য করা যায়তামাগাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথমে রবীন্দ্রনাথের ইংরেজী প্রবন্ধ পাঠ্য হিসেবে পড়ানোর সূচনা করেন এই প্রতিষ্ঠানেরই খ্যাতিমান অধ্যাপক১৯৬১ সালে রবীন্দ্র জন্মশতবর্ষ উদযাপনের কয়েক বছর আগে থেকেই তিনি প্রাচ্য দর্শন বিভাগের শ্রেণীতে রবীন্দ্রনাথ পড়াতে শুরু করেনর মূল গ্রন্থ টাইপ রাইটারের মাধ্যমে টাইপ করে নিয়ে পাঠ্যপুস্তক তৈরি করেছিলেনযুদ্ধ পরবর্তী জাপানী সমাজে তরুণ প্রজন্মের মানসে প্রাচ্যভাবনার একটা লক্ষণ দেখা দেওয়ায় তিনি ভাবেনবৌদ্ধদর্শন থেকে জ্ঞান আহরণ করাটা শিক্ষার্থীদের পক্ষে কঠিন হওয়ার কারণে রবীন্দ্র চিন্তাকে নির্বাচন করেনঅনেক ছাত্রছাত্রী উপর্যুক্ত রবীন্দ্ররচনা পাঠ করে তাদের মতামত ব্যক্ত করতে থাকেঅনেকেই প্রফেসর ইনাজুর কাছে এসে রবীন্দ্র-প্রভাবে তাদের জীবন দর্শনে নতুন পরিবর্তনের কথা ব্যক্ত করেযুদ্ধবিধ্বস্ত দিশাহীন সমাজে ভবিষ্যতের নতুন আলোর দিক-নির্দেশনা খুঁজে পেয়েছে এমন শিক্ষার্থীর সংখ্যা মোটেই কম ছিল নাবন বনানীর সবুজ-শ্যামলিমায় পরিপুষ্ট তামাগাওয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি শান্তি নিকেতনের সঙ্গে খুব মিল থাকার কারণে তাই এই প্রতিষ্ঠানে তরুণ ছাত্র এবং ভবিষ্যতে শিক্ষক হওয়ার স্বপ্ন দ্রষ্টারাই ছিলেন অধিকতাঁদের লভ্য শিক্ষা যেন পরিপূর্ণ এবং উচ্চমানসম্পন্ন হয় সেই দিকটি বিবেচনা করে প্রফেসর ইনাজু পাঠ্যপুস্তক তৈরি করেছেন রবীন্দ্ররচনাকে শিক্ষাদানের উদ্দেশ্য শুধু এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিশেষ মর্যাদার পরিপূরক হিসেবে নয়অতীতকাল থেকে জাপানে রবীন্দ্রনাথ বলতে কবি কিংবা ধ্যানি দার্শনিক জাতীয় যে সীমিত প্রতিচ্ছবি তাঁর সম্পর্কে মানুষের মনে বিদ্যমান ছিলতাঁর এই প্রদৃপ্ত বাস্তববাদিতা নতুন ভারতের জন্মদানে মূল চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করেছেভারতবর্ষকে জানার মধ্য দিয়ে জাপান-ভারতের নতুন যোগসূত্রকে প্রতিষ্ঠিত করার অপরিহার্য কাজটি ছিল আমার চিন্তার বিষয়তরুণ প্রজন্মের অন্তরের অভিপ্রায়ে আমার এই চিন্তা মিলে গিয়ে ফলপ্রসূ হয়েছেএকই সময়ে রবীন্দ্রানুসারী প্রফেসর ইনাজুর মতো আরেক রবীন্দ্রানুরাগীর কথাও জানা যায়তিনি ছিলেন জাতীয় নাগাসাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর এবং ইতালীয় সাহিত্যের গবেষকমহাযুদ্ধের পর রবীন্দ্রনাথের বিভিন্ন বক্তৃতার সংকলন পাঠ করে তাঁর নামের সঙ্গে প্রথম পরিচিত হন১৯৫৪-৫৫ সালে ইতালির রাজধানী রোম ভ্রমণকালে ট্রেভি শহরের পুরনো গ্রন্থবিতানে ইংরেজী গ্রন্থটিকে আকাশের লক্ষ-কোটি নক্ষত্রের মধ্যে এক বিস্ময়কর উজ্জ্বল তারকা বলে উল্লেখ করেনদ্বারা প্রবলভাবে অনুপ্রাণিত হয়ে তাঁর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন তরুণ সমাজের দৃষ্টি রবীন্দ্রনাথের দিকে নিবদ্ধ করার জন্য শ্রেণীকক্ষে রবীন্দ্ররচনা পড়ানোর সিদ্ধান্তে উপনীত হনসেই তাগিদ থেকেই নির্বাচন করেন রবীন্দ্রনাথের ইংরেজী প্রবন্ধের সিরিজ থেকে বেছে নিয়ে আমি নতুন বছরের (১৯৫৯) পাঠ্যসূচীতে আমার শ্রেণীকক্ষে ইংরেজী ভাষায় পাঠ্য হিসেবে রবীন্দ্রনাথের ইংরেজী সিরিজের প্রথম ভাগ থেকে শ্রেণীকক্ষে যখন প্রথম রবীন্দ্রনাথের রচনা পাঠ করি তখন তাঁর নামের সঙ্গে পরিচিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল নিতান্তই কমবার্ট্রান্ড রাসেল প্রমুখের প্রবন্ধ পাঠ করার পর রবীন্দ্রনাথ সম্পর্কে ছাত্রদেরকে বলিএই সকল লেখকদের চেয়ে রবীন্দ্রনাথের নাম তোমাদের কাছে দূরের কেউ বলে মনে হতে পারেযখন পাঠ করে শোনালাম তখন ছাত্ররা রবীন্দ্রনাথকেই যে আমাদের কাছের মানুষ ইউরোপীয়দের চেয়ে এবং উত্তমরূপে আমাদের মনে আবেদন সৃষ্টি করতে পারেনআমি শ্রেণীকক্ষে ছাত্রছাত্রীরা যাতে নিজেরা বক্তৃতা এবং আলোচনার মাধ্যমে রবীন্দ্রনাথকে বুঝতে পারে তার জন্য ছোট ছোট দলে বিভক্ত করিতাদের মধ্যে একজন ছাত্র প্রবল আগ্রহ নিয়ে আমার কাছ থেকে রবীন্দ্রনাথের বিভিন্ন প্রবন্ধগ্রন্থ ধার করে নিয়ে গিয়ে পাঠ করে একটি প্রবন্ধ লিখে ছাত্র-সাময়িকীতে প্রকাশ করেছিলএই শিক্ষামূলক রচনার পাশাপাশি গীতাঞ্জলি থেকেও কবিতা পাঠ ও ব্যাখ্যা করে পড়ানোর কথা বলেছেন প্রফেসর ইয়ামাগুচিএগুলো কবির আধ্যাত্মিকতার এক-একটি স্ফটিক-প্রস্তর এবং গবেষণার ক্ষেত্রে মূল্যবানকিন্তু যুদ্ধোত্তর এবং যুদ্ধপরবর্তী জাপানি শিক্ষাবিদরা যেভাবে মূল্যায়ন করেছেন