আম্বানির Jio-কে টক্কর! এবার টেলিকম ব্যবসায় নামছে আদানি গ্রুপ

সাম্প্রতিক ভারতের বাজারে আম্বানি ও আদানির গ্রুপের টক্কর সকলের জানা। বিশ্বের ধনী শিল্পপতিদের তালিকাতে কখনও মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani), কখনও গৌতম আদানি এগিয়ে থাকেন। তবে দেশের দুই ধনকুবের কোনও ব্যবসাতেই সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামেননি। এবার সেই চিত্রই বদলাতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। মুকেশ আম্বানির জিও (Jio), সুনীল ভারতী মিত্তলের (Sunil Bharati Mittal) এয়ারটেলের (Airtel) সঙ্গে দৌড়ে নামছেন গৌতম আদানি।

জানা গিয়েছ, ইতিমধ্যে টেলিকম ব্যবসায় নামার অন্যতম শর্ত পূরণ করে ফেলেছে আদানি গ্রুপ। মিলে গিয়েছে ন্যাশনাল লং ডিসট্যান্স (NLD) এবং ইন্টারন্যাশনাল লং ডিসট্যান্স (ILD) লাইসেন্স। সূত্রের খবর, গত ২৬ জুলাই ৫জি-র ‘এয়ারওয়েভে’র (Airwave) নিলাম করে সরকার। ওই দিন জিও, এয়ারটেল এবং ভোডাফোন আইডিয়া (Vodaphone Idea) ছাড়াও চতূর্থ একটি সংস্থা উপস্থিত ছিল। আর সেই চার নম্বর রহস্যময় সংস্থাটিই হল গৌতম আদানির সংস্থা।

মূলত কয়লা, বিদ্যুৎ এবং উড়ান ব্যবসায় মনোনিবেশ করেছে আদানি গ্রুপ। তাতেই বিশ্বের অন্যতম ধনী শিল্পপতি গৌতম আদানি। জোর টক্কর দিচ্ছেন গুজরাটি ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানির সঙ্গে। যিনি মূলত তেল-পেট্রোকেমিক্যাল, টেলিকম এবং খুচরো ব্যবসায় ভারত জয় করেছেন। উল্লেখ্য, ভারতের বাজারে টেলিকম ব্যবসায় এই মুহূর্তে এয়ারটেল, জিও এবং ভোডাফোন আইডিয়া রয়েছে। তবে ভোডাফোনের অবস্থা তত ভাল নয়। মূলত এয়ারটেল ও জিওর মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা তুমুল। এই দুই কোম্পানির সঙ্গে আদানি গ্রুপ পাল্লা দিয়ে লড়বে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। সেক্ষেত্রে বাজারে নতুন সংস্থার আগমনে সস্তা ও ভাল পরিষেবার অফার বাড়তে পারে, এও মনে করা হচ্ছে।