‌‘ফাদার অফ দ্য নেশন’র ফাস্ট লুক প্রকাশ

হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আজীবন সংগ্রামের ঘটনাবহুল ত্যাগ ও অর্জনের আলোকচিত্র তুলে ধরে বর্ণ গ্রুপ নির্মাণ করতে যাচ্ছে পূর্ণদৈর্ঘ্য ডকুমেন্টরি চলচ্চিত্র “ফাদার অফ দ্য নেশন”।

ডকুমেন্টরিটির উপদেষ্টা হিসেবে আছেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দ সৈনিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. মনোরঞ্জন ঘোষাল ও অধ্যাপক ড. এ. টি. এম. রেজাউল হক। প্রযোজনা করছেন আলহামরা নাসরিন হোসেন লুইজা, চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা মনজুরুল ইসলাম মেঘ। সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করছেন আদাবর থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম রানা।

বর্ণ গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ‘ফাদার অফ দ্য নেশন’-এর প্রযোজক আলহামরা নাসরিন হোসেন লুইজা জানান, বঙ্গবন্ধু আমার চেতনা, ছোটবেলায় বঙ্গবন্ধুকে স্বচক্ষে দেখার সৌভাগ্য আমার হয়েছে। আমি একজন বঙ্গবন্ধু প্রেমী। বাবা মুক্তিযোদ্ধা হওয়ায় পরিবার থেকেই বড় হয়েছি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে।শিক্ষা জীবনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতি করার সময় হল থেকে বহিস্কার হয়েছি, আমার ক্যারিয়ারের অনেক ক্ষতি হয়েছে কিন্তু বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ছাড়িনি। দীর্ঘ ৮ বছর পরিশ্রম করে বঙ্গবন্ধুর ১৩০০ ছবি নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে প্রকাশ করেছি “ছবির ভাষায় মহানায়ক বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ”।

বুধবার (৯ জুন) তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সেমিনার কক্ষে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি। তিনি বইটির প্রশংসা করেছেন। ইতোপূর্বেও আমার অন্যান্য প্রকাশিত বইয়ের মোড়ক উন্মোচন মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় করেছিলেন। মন্ত্রী মহোদয়কে ‘ফাদার অফ দ্য নেশন’ বিষয়ে আমরা অবগত করেছি। এই ডকুমেন্টরিটির কাজ অনেক আগেই শুরু হয়েছে কিন্তু বইটির মোড়ক উন্মোচনের বিলম্ব হওয়ায় ‘ফাদার অফ দ্য নেশন’ এর ফাস্ট লুক দেরিতে প্রকাশিত হলো।

ইতোমধ্যেই “ছবির ভাষায় মহানায়ক বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ” এবং “ফাদার অফ দ্য নেশন” এর কপিরাইট নিবন্ধন করেছি আমরা।

পূর্ণদৈর্ঘ্য ডকুমেন্টরি চলচ্চিত্র ‘ফাদার অফ দ্য নেশন’-এর চিত্রনাট্যকার ও পরিচালক মনজুরুল ইসলাম মেঘ জানান, মুজিব বর্ষে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আমি বেশ কিছু কাজ করেছি, একটি ডকুমেন্টরি করার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছিলাম। বর্ণ গ্রুপের পক্ষ থেকে প্রস্তাব পেয়ে গত চার মাস আগেই আমরা কাজ শুরু করেছি। চিত্রনাট্য ও গবেষণার কাজ শেষ হয়েছে।

‘ফাদার অফ দ্য নেশন’ ডকুমেন্টরিতে থাকবে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত ২১ জন কবির কবিতা, ৭ জন গল্পকারের গল্প থেকে উদ্বৃত্তি, ৬ জন বিখ্যাত পেইন্টারের বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে স্কেচ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী ও কারাগারের রোজনামচা থেকে কোটেশন, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ, আলোকচিত্র, বঙ্গবন্ধুর বড় কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধুর ছোট কন্যা শেখ রেহানার স্মৃতিচারণ, ১৫ আগস্টের শহীদদেরআলোকচিত্র।

এছাড়াও ‘ফাদার অফ দ্য নেশন’-এ আরো কিছু আকর্ষণ থাকবে যা আগে দর্শক দেখেনি, আমরা এখনি সব বলতে চাচ্ছি না। পূর্ণদৈর্ঘ্য ডকুমেন্টরি চলচ্চিত্র দৈর্ঘ্য হবে মহান মুক্তিযুদ্ধর সালকে স্মৃতিময় করতে ৭১ মিনিট। মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে এই ডকুমেন্টরি চলচ্চিত্র মুক্তি পাবে চলতি বছরের ১৪ ডিসেম্বর।

প্রযোজনা ও পরিবেশনা প্রতিষ্ঠান সিনেম্যাকিং এর ব্যানার থেকে নির্মানাধীন পূর্ণদৈর্ঘ্য ডকুমেন্টরি চলচ্চিত্র ‘ফাদার অফ দ্য নেশন’ এর গবেষনা টিমে কাজ করছেন আহসানা অঙ্গনা, অয়ময় অরণ্য, ইমরান হোসেন, মুন্না, মোঃ রফিকুল ইসলাম ও মুক্তার হোসেন।

বর্তমান প্রজন্মের সফল বলিউড তারকা আলিয়া ভাট। এবার নতুন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি তিনি। হলিউডে অভিষেক হচ্ছে তার। ‘হার্ট অফ স্টোন’ ছবির সঙ্গে নতুন জার্নি শুরু হবে আলিয়ার। শনিবার প্রকাশ্যে এসেছে নেটফ্লিক্সের এই থ্রিলারের ফার্স্ট লুক। এই ছবিতে আলিয়ার কো-স্টার হিসাবে দেখা মিলবে গাল গাডোত, জেমি ডরমানদের। আলিয়ার হলিউড ডেবিউ পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন টম হারপার।

ছবির বেশ কিছু দৃশ্যের ঝলক সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস হয়েছিল আগেই, তবে শনিবার ‘টুডাম: এ নেটফ্লিক্স গ্লোবাল ফ্যান ইভেন্ট’-এ আনুষ্ঠানিকভাবে ছবির একটি বিহাইন্ড দ্য সিনস ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। সেখানেই কেয়া ধাওয়ান হয়ে সামনে এলেন আলিয়া।

ভিডিয়োতে ধরা পড়েছে মারকাটারি অ্যাকশনের দৃশ্য। এই অ্যাকশন থ্রিলারে কেন্দ্রীয় চরিত্র ব়্যাচেল স্টোনের ভূমিকায় রয়েছেন গাল গাডোত। ছবির অ্যাকশনের দৃশ্যগুলোকে যতটা সম্ভব বাস্তবধর্মী করে তোলা যায় সেই চেষ্টাই গোটা টিম করেছে, বলে ভিডিয়োয় বলতে শোনা গেল গাল গাদোতকে। যাঁকে এখানে সিআইএ (মার্কিন গুপ্তচর সংস্থা)-এর এজেন্ট হিসাবে দেখা যাবে।

প্রেগন্যান্সির প্রথম পর্যায়ে থাকাকালীন এই ছবির শ্যুটিং শুরু করেছিলেন আলিয়া। অন্তঃসত্ত্বা হলেও নিজের কেরিয়ারের সঙ্গে আপোস করতে রাজি ছিলেন না রণবীর ঘরণী। শ্যুটিং-এর ফাঁকের বেশ কিছু ছবিতে আলিয়ার বেবি বাম্পের ঝলক ধরা পড়েছে।

এক সাক্ষাৎকারে আলিয়া জানান, ‘আমি অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় এই অ্যাকশন ছবির শ্যুটিং-এ আমি বাড়তি সতর্ক ছিলাম। কিন্তু সবাই এমনভাবে আমাকে সাহায্য করেছে যে গোটা প্রক্রিয়াটাই খুব সহজ আর আরামদায়ক ছিল আমার জন্য। আমি কোনওদিন ভুলব না আমাকে সকলে কতটা যত্ন করে আগলে রেখেছিল।’

টম ক্রুজের 'মিশন ইম্পসিবল' ধাঁচের একটি ফ্রাইঞ্চসি হতে চলেছে এই ছবি। আগামী বছর নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাবে ‘হার্ট অফ স্টোন’।

বলিউড কিং শাহরুখ খান। বয়স ৫৬-র কোঠায়। কিন্তু তাঁকে দেখলে বোঝা দায়। তিনি প্রায় তিন দশক ধরে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে শাসন চালাচ্ছেন। এবার নতুন শার্টলেস ফটোশ্যুটে ফের একবার অনুরাগীদের ঘুম কেড়েছেন তিনি। ক্যামেরার সামনে ধরা দিয়েছেন একেবারে অন্য মেজাজে।

কাউচের ওপর শুয়ে কিং খান। আট প্যাক অ্যাবস স্পষ্ট। ছবিতে ‘সিলসিলা’ ছবির সংলাপের মতো ক্যাপশন দিয়ে শাহরুখ লিখেছেন, ‘আমি আমার টি-শার্টকে বলছি, তুম হোতি তো ক্যায়সা হোতা… তুম ইস বাত পে হ্যায়রান হোতি, তুম ইস বাত পে কিতনি হাসতি… তুম হোতি তো অ্যায়সা হোতা…।’

বয়স যেন তার কাছে সংখ্যামাত্র। ‘পাঠান’ লুকে শাহরুখকে দেখে রীতিমতো হতবাক নেটিজেন। অভিনেতার ছবিতে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন নেটিজেন। ২৫ জুন, বলিউডে তিন দশক পূর্ণ করলেন শাহরুখ খান। এই বিশেষ দিনে অভিনেতা বহুপ্রতিক্ষীত ছবি ‘পাঠান’-এর পোস্টার নেটমাধ্যমে শেয়ার করেছিলেন।

লম্বা বিরতির পর ২০২৩ সালের শুরুতে বড় পর্দায় ফিরছেন শাহরুখ খান। আগামী বছরে অভিনেতার হাতে রয়েছে একগুচ্ছ কাজ। মুক্তি পাবে শাহরুখের একের পর এক ছবি। ‘পাঠান’ দিয়ে শুরু এরপর ‘জওয়ান’, তালিকায় রয়েছে ‘ডানকি’।

২০১৮ সালে ‘জিরো’ ছবিতে শেষবার বড় পর্দায় দেখা গিয়েছিল অভিনেতাকে। এই নিয়ে চার নম্বর ছবিতে একসঙ্গে কাজ করতে চলেছেন দীপিকা আর শাহরুখ। রয়েছেন জন আব্রাহামও। পরিচালক সিদ্ধার্থ আনন্দের দাবি, অ্যাকশন ঘরানার ছবির ক্ষেত্রে নতুন মাইলফলক সৃষ্টি করবে এই ছবি। ২০২৩ সালের ২৫ জানুয়ারি সিনেমা হলে মুক্তি পাবে ‘পাঠান’। হিন্দি, তামিল এবং তেলুগু তিন ভাষায় মুক্তি পাবে এই ছবি।

‘পাঠান’-এর পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। ‘জওয়ান’ এবং ‘ডানকি’র শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত কিং খান। ৯ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছে ‘ব্রহ্মাস্ত্র’। ছবিতে ক্য়ামিও চরিত্রে রয়েছেন শাহরুখ।

চলতি বছরের গোড়ার দিকে হিজাব বিতর্কে উত্তাল হয়েছিল গোটা দেশ। কর্নাটক সর কার ‘হিজাব’কে ধর্মীয় পোশাক বলে দাগিয়ে দিয়ে তা পরে কলেজে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা করে। সেই নিয়েই আন্দোলনে মাঠে নেমেছিল মুসলিম মেয়েরা। মামলা গড়িয়েছে সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত। টানা ৯ দিনব্যাপী হিজাব মামলার শুনানি সদ্য সম্পূর্ণ হয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে।

অন্যদিকে বিশ্বের অপর এক দেশে সম্পূর্ণ ভিন্ন পরিস্থিতি। ইরানের মহিলারা হিজাব না পরবার জন্য প্রকাশ্য রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। সাত বছরের বেশি বয়সী নারীদের হিজাব পরা ইরানে পরতে বাধ্যতামূলক। এর বিরোধিতায় বহু নারী ক্যামেরার সামনে তাঁদের চুল কেটে ফেলে এবং হিজাব পুড়িয়ে দিয়েছেন। ‘লিঙ্গ বৈষম্যের শাসনে বিরক্ত’ ইরানের মহিলারা, তাই হিজাব থেকে ‘মুক্তি’ চান তাঁরা। ‘হিজাব’ ইস্যুতে এবার মুখ খুললেন গায়ক আদনান সামি।

এদিন টুইটারে পাক বংশোদ্ভূত এই গায়ক লেখেন- ‘যদি তথাকথিত মৌলবাদীরা দাবি করেন এটা কোরানে লেখা আছে, তাহলে সেটাও মহিলা আর আল্লার মধ্যেকার ব্যাপার। সেটা আপনার সমস্যার কারণ হওয়া উচিত নয়!!! দয়া করে নিজের চরকায় তেল দিন আপনারা’।

এরপর তিনি আরও লেখেন, ‘আমি হিজাবের পক্ষে বা বিরুদ্ধে নয়। কিন্তু আমি কারুর ব্যক্তি সিদ্ধান্তের (চয়েস) পক্ষে। যদি কোনও নারী তাঁর ইচ্ছায় হিজাব পরেন, তাহলে আমার আপত্তি নেই। আবার যদি কোনও নারী হিজাব না পরতে চান, তাহলেও আমার কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু আমার সমস্যা হল, কেউ যদি তাঁকে (নারীকে) জোর করে তাঁর ইচ্ছার বিরুদ্ধে হিজাব পরতে বাধ্য করে। #ফ্রিচয়েস’।

উল্লেখ্য, হিজাব মামলায় নিজের রায় সংরক্ষিত রেখেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। তবে শীর্ষ আদালতের পর্যবেক্ষণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের হিজাব পরার অনুমতি দেওয়া হলে তা ভারতের বৈচিত্র্য সম্পর্কে জানার সুযোগ হিসেবে বিবেচনা করা যেতে পারে। বেঞ্চ জানায়, ‘কেউ এটাও বলতে পারে, এটি বৈচিত্র্য প্রকাশের একটি সুযোগ। আমাদের কাছে সমস্ত সংস্কৃতি, ধর্মের শিক্ষার্থী রয়েছে। দেশের বৈচিত্র্যের দিকে তাকান, তাদের প্রতি সাংস্কৃতিকভাবে সংবেদনশীল হোন।’

৯৫তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ডস তথা অস্কারের ‘বিদেশি ভাষার সিনেমা’ বিভাগের জন্য বাংলাদেশ থেকে মনোনয়ন পেয়েছে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত সিনেমা ‘হাওয়া’। অস্কার বাংলাদেশ কমিটির সমন্বয়ক আব্দুল্লাহ আল মারুফ এই তথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, “এবার দুটি সিনেমা জমা পড়েছিল। সেখান থেকে ‘হাওয়া’ নির্বাচিত হয়েছে।”

২০২৩ সালের ১২ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে ৯৫তম অস্কারের অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান। আয়োজনে যথারীতি একাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস।

যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে ক্যালিফোর্নিয়ার ডলবি থিয়েটারে ২৪টি শাখায় দেওয়া হবে পুরস্কার। বেস্ট ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম সেগুলোরই একটি। উল্লেখ্য, ‘হাওয়া’ সিনেমার বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, নাজিফা তুষি, শরিফুল রাজ, সোহেল মণ্ডল, নাসির উদ্দিন খান, সুমন আনোয়ার প্রমুখ। সমুদ্রে মাছ ধরার একটি ট্রলারকে কেন্দ্র করে গল্পটি এগিয়েছে। যেখানে লোকজ ভাষা-সংস্কৃতি ও রহস্যের উপস্থিতি থাকবে।