নতুন বিনিয়োগ ভিসা চালুর ঘোষণা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড সরকার। স্থানীয় ব্যবসায় বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%89%E0%A6%9C%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A1%E0%A7%87-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%8B%E0%A6%97%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%80%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%9C%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%AF-%E0%A6%A8%E0%A6%A4%E0%A7%81%E0%A6%A8-%E0%A6%85%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A6%A8-%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%B8%E0%A6%BE/a-62538989

নিউজিল্যান্ডের অর্থ ও আঞ্চলিক উন্নয়ন মন্ত্রী স্টুয়ার্ট ন্যাশ বুধবার এ ঘোষণা দেন। এক বিবৃতিতে তিনি জানান, এখন থেকে আগের বিনিয়োগ ভিসা আর কার্যকর থাকবে না।  কারণ আগের ভিসায় বিনিয়োগকারীরা শেয়ার ও বন্ডে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী হতেন। তারা কিউই কোম্পানিগুলোতে বিনিয়োগ করতেন না।

"আমরা সরাসরি বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে চাই, যাতে নিউজিল্যান্ডে দক্ষকর্মীদের কাজের সুযোগ তৈরি হয় এবং অর্থনৈতিক উন্নয়ন হয়,” বলেন ন্যাশ।

নতুন ভিসার জন্য সম্ভাব্য বিনিয়োগকারীদের ৫০ লাখ নিউজিল্যান্ড ডলার (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৩০ কোটি টাকা) বিনিয়োগ করতে হবে এবং কেবল এর ৫০ ভাগ শেয়ার বা বন্ডে বিনিয়োগ করা যাবে। আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে এই ভিসা ক্যাটাগরি চালু হচ্ছে।