শেয়ার ব্যবসায়ী নাকি এখন ডলার ব্যবসায় জড়িত: এফবিসিসিআই সভাপতি

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেছেন, অনেক শেয়ার ব্যবসায়ী নাকি এখন ডলার ব্যবসায় জড়িত হয়েছেন। সরকারের উচিত হবে, এসব ব্যবসায়ীদের শক্ত হাতে দমন করা। আমাদের ব্যাংকগুলোকে ব্যবসা করার লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে, কিন্তু এক ডলারের বিনিময়ে ১০ টাকা লাভ করার লাইসেন্স দেওয়া হয়নি। ডলার কারসাজিতে যারাই জড়িত থাকুক না কেন, তাদের শক্ত হাতে ধরা দরকার।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত শেষে এসব মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক ৯৪ টাকায় ডলার সরবরাহ করবে আর আপনি ১০৫-১১০ টাকায় বিক্রি করবেন তা তো হতে পারে না। এখানে ডিসিপ্লিন আনা দরকার, ডিসিপ্লিনের জায়গাটা শক্ত নয় বলে মত দেন তিনি।

আব্দুর রউফ তালুকদার গভর্নর হওয়ার পরে এফবিসিসিআই এর পক্ষ থেকে কোনো প্রতিনিধিদল আসতে পারেনি বলে আজ সৌজন্য সাক্ষাত করতে এসেছেন বলে জানান সংগঠনটির সভাপতি।

কিছু বিষয় নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। কয়েকদিন আগে বাংলাদেশ ব্যাংক ঋণ শিডিউল নিয়ে যে সার্কুলার দিয়েছে সেখানে বড়দের পাশাপাশি ক্ষুদ্রদেরও সমান সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হোক বলে আহ্বান জানানো হয়েছে।

এখন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ৯৪ টাকায় ডলার দেবে, আর অন্যান্য ব্যাংক তা ১০৫-১১০ টাকায় বিক্রি করবে তা আমরা চাইনা। শুধু ব্যাংক না এক্সচেঞ্জ হাউজগুলোও যদি অনিয়ম করে থাকে তাদেরও ধরা উচিত বলে গভর্নরকে জানিয়েছেন এফবিসিসিআই এর সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন।