Numerology: দারুণ বুদ্ধিমান মাসের এই তারিখগুলোতে জন্মানো ব্যক্তিরা, সাফল্য মেলে ব্যবসায়

Numerology বা সংখ্যাতত্ত্ব জ্যোতিষশাস্ত্রে একটা গুরুত্বপূর্ণ দিক। আমাদের জীবনে সংখ্যার বড় ভূমিকা রয়েছে। জন্মতারিখ অনুসারে প্রতিটি ব্যক্তির একটি করে মূলাঙ্ক থাকে। এই মূলাঙ্কের প্রভাব ব্যক্তির জীবনে নানা ভাবে কাজ করে। আজ আমরা আলোচনা করব ৫ মূলাঙ্কের জাতক যাঁরা, তাঁরা কেমন ধরনের মানুষ হন।

কোনও মাসের ৫, ১৪ এবং ২৩ তারিখে যাঁদের জন্ম, তাঁদের মূলাঙ্ক ৫। নিউমেরোলজি অনুসারে ৫ মূলাঙ্কের জাতকদের উপর বুধ গ্রহের প্রভাব থাকে। বুধ হল বুদ্ধির কারক গ্রহ। সেই কারণে ৫ মূলাঙ্কের জাতকদের মধ্যে স্বাভাবিক বুদ্ধিবৃত্তি অন্যদের থেকে বেশি। বুদ্ধির ঝলক থাকা ছাড়াও সাহসী ও কঠোর পরিশ্রমী হন মাসের ৫, ১৪ এবং ২৩ তারিখে জন্মানো ব্যক্তিরা। এরা জীবনের সবরকম চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হন এবং সেই সব সমস্যা কাটিয়ে ওঠার জন্য সবরকম ভাবে চেষ্টা করেন।


ব্যবসার দিকেও এদের ঝুঁকি নেওয়ার সাহস থাকে। নতুন প্রকল্পে টাকা খাটিয়ে লাভ ওঠাতে পারেন ৫ মূলাঙ্কের জাতকরা। এই কারণে ৫ মূলাঙ্কের জাতকরা চাকরির থেকে ব্য়বসায় বেশি সাফল্য অর্জন করেন। কারণ চাকরির নিশ্চিন্ত আয়ের থেকে ব্য়বসায় যে ঝুঁকি নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে, তাতেই বেশি স্বচ্ছন্দ হন এরা।


পরিস্থিতি অনুযায়ী নিজেকে বদলে ফেলে সব রকম অবস্থার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা রাখেন ৫ মূলাঙ্কের জাতকরা। অন্য়দের নিজের প্রতি আকর্ষণ করার ক্ষমতাও থাকে এদের মধ্যে। ছোটখাটো জিনিসের মধ্যে এরা জীবনের সুখ খুঁজে পান। তাই কোনও একটা ইস্যুতে বেশিক্ষণ এরা মন খারাপ করে থাকতে পারেন না। এর পাশাপাশি অন্যদের দিয়ে কী ভাবে কাজ করিয়ে নিতে হয়, তা খুব ভালো করে জানেন ৫ মূলাঙ্কের জাতকরা।

স্মার্ট ও বুদ্ধিমান হওয়ার কারণে মাসের ৫, ১৪ এবং ২৩ তারিখে জন্মানো ব্যক্তিরা অনেক লেখাপড়া শেখেন। অনেক ভাষার জ্ঞান থাকে এদের। কোনও কারণে এরা বেশিদূর প্রথাগত পড়াশোনা করতে না পারলেও স্বাভাবিক বুদ্ধিবৃত্তির জোরে এগিয়ে যান। এদের আর্থিক অবস্থাও সাধারণত বেশ ভালোই হয়। ব্যবসায় লাভ করার ক্ষমতা রাখেন এরা, তাই আর্থিক সংকটের মধ্যে পড়েন না। এদের অনেক বন্ধু-বান্ধব থাকে। একাধিক প্রেমের সম্পর্কেও জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকে মাসের ৫ মূলাঙ্কের জাতকদের।