এ বার ব্যর্থ! পরের বার কি সরাসরি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে পারবেন শাকিবরা

এ বার ব্যর্থ! পরের বার কি সরাসরি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে পারবেন শাকিবরা

পাকিস্তানের কাছে হেরে যাওয়ায় এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গিয়েছে বাংলাদেশ। পরের বার কি সরাসরি বিশ্বকাপ খেলতে পারবেন শাকিবরা? না কি যোগ্যতা অর্জন করতে হবে তাঁদের?

এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে আগেই ছিটকে গিয়েছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের কাছে হেরে তাদের বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্ন শেষ। কিন্তু পরের বারও কি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনিশ্চিত তাঁদের? বাংলাদেশকে কি যোগ্যতা অর্জন পর্ব খেলতে হবে? কী বলছে বর্তমান পরিস্থিতি।

এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে গ্রুপ ২-এ ছিল বাংলাদেশ। পাঁচ ম্যাচের মধ্যে দু’টিতে জিতেছে তারা। ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে পাঁচ নম্বরে রয়েছেন শাকিবরা।

২০২৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আমেরিকায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সে বার ২০ দলের বিশ্বকাপ হবে। তার মধ্যে ১২টি দল ইতিমধ্যেই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। আয়োজক দেশ হওয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আমেরিকা বিশ্বকাপ খেলবে। আটটি দেশ এ বারের দু’টি গ্রুপের সেরা চার দল। গ্রুপ ১-এর প্রথম চারটি দল হল যথাক্রমে, নিউজ়িল্যান্ড, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কা। গ্রুপ ২-এর প্রথম চারটি দল হল যথাক্রমে, ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা ও নেদারল্যান্ডস। এই আটটি দেশ পরের বার সরাসরি বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন করেছে।

এ ছাড়া আইসিসির টি-টোয়েন্টি ক্রমতালিকায় প্রথম আটে থাকার কারণে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানও সরাসরি যোগ্যতা অর্জন করেছে পরের বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। অর্থাৎ, যোগ্যতা অর্জন পর্ব খেলতে হবে না শাকিবদের।

এ বারের বিশ্বকাপের বাকি দু’টি দলকে যোগ্যতা অর্জন পর্ব খেলতে হবে। গ্রুপ ১-এর আয়ারল্যান্ড ও গ্রুপ ২-এর জ়িম্বাবোয়ে রয়েছে সেই তালিকায়।

এ বারের বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল বাংলাদেশ। তার পরেও খুব একটা ভাল বিশ্বকাপ যায়নি তাদের। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচ খেলতে নামার আগে শেষ চারে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। নেদারল্যান্ডসের কাছে দক্ষিণ আফ্রিকা হারায় আশা জেগেছিল বাংলাদেশের। কিন্তু পাকিস্তানের কাছে হারায় সেই আশা শেষ হয়ে যায়। এ বারের বিশ্বকাপ থেকে ব্যর্থ হয়ে ফিরতে হয় বাংলাদেশকে।