FIFA World Cup 2022: বিশ্বকাপে ফুটবলারদের উদ্দেশে গালমন্দ রুখতে পন্থা ফিফার

FIFA World Cup 2022: বিশ্বকাপে ফুটবলারদের উদ্দেশে গালমন্দ রুখতে পন্থা ফিফার

ফুটবলার হোক বা ক্রিকেটার, মাঠে নেমে তাঁরা যদি ভালো পারফর্ম করে দলকে জেতাতে না পারেন, তা হলে নেটিজ়েনদের সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাঁদের।

এ বারের বিশ্বকাপের সঙ্গে মোট ৮৩১ জন ফুটবলার যুক্ত। সেই ফুটবলারদের যাতে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বিদ্বেষমূলক, অবমাননাকর, ঘৃণ্য মন্তব্য পেতে না হয়, সে বিষয়ে বিশেষ ব্যবস্থা নিচ্ছে ফিফা। বিশ্বকাপের সঙ্গে যুক্ত ফুটবলারদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হবে। আগামী রবিবার (২০ নভেম্বর) কাতার বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে। টুইটার কন্টেন্ট মডারেশন টিমে কাজ করা একদল কর্মীকে বরখাস্ত করার মাত্র কয়েকদিন পরই এই পদক্ষেপ নিচ্ছে ফিফা।

সকার ওয়ার্ল্ড বডির তরফ থেকে বলা হয়েছে, “টিম, ফুটবলার এবং অন্যান্য স্বতন্ত্র অংশগ্রহণকারীরাও এই পরিষেবা উপভোগ করতে পারবে। যা তাৎক্ষণিকভাবে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এবং ইউটিউবে অবমাননাকর এবং আপত্তিকর মন্তব্যগুলিকে লুকিয়ে রাখবে। প্রাপক এবং তাদের অনুগামীরা সেই সকল মন্তব্যগুলি দেখতে পাবে না।”

ফিফা জানিয়েছে এই প্রকল্পটির মাধ্যমে বিশ্বকাপের সকল অংশগ্রহণকারীদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট পর্যবেক্ষণ করা হবে এবং বৈষম্য ও হুমকি জানিয়ে কোনও পোস্ট থাকলেই তার বিরুদ্ধে রিপোর্ট করবে। ফিফার পক্ষ থেকে গত বছরের জুনে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ এবং আফ্রিকান নেশনস কাপের পরবর্তী পর্যায়ে ফুটবলারদের উদ্দেশে ঘৃণ্য বক্তব্যের বিশদ বিবরণ দিয়ে গবেষণা করা হয়েছিল।

তাতে বলা হয়েছে, এই সব ফুটবলারদের অর্ধেকেই কোনও না কোনও বৈষম্যমূলক মন্তব্যের শিকার হয়েছে। আর তার বেশিরভাগই তাঁদের নিজের দেশ থেকে। উল্লেখ্য, স্পেনের স্ট্রাইকার আলভারো মোরাতা গত বছরের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে দারুণ সুযোগ হাতছাড়া করার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রাণনাশের হুমকিও পেয়েছিলেন।